Logo
সংবাদ শিরোনাম :
কাল বসন্ত পঞ্চমী, এই দিনটির তাৎপর্য ও ইতিহাস কমলগঞ্জে শেখ কামাল আন্ত:স্কুল ও মাদ্রাসা অ্যাথলেটিকস প্রতিযোগিতা কমলগঞ্জে বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান ক্রিকেট চ্যাম্পিয়নশীপস এর উদ্বোধন কমলগঞ্জে ব্যবসায়িক দ্বন্দ্বে ছুরিকাঘাতে আহত যুবকের মৃত্যু কমলগঞ্জে কিশোরী ক্লাবের ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান কমলগঞ্জে সাঁওতালদের ঐতিহ্যবাহী ‘সোহরাই’ উৎসব অনুষ্ঠিত কমলগঞ্জে সারথী কথামৃত’র বিশেষ ক্রোড়পত্রের মোড়ক উন্মোচন মৌলভীবাজারে ‘শব্দচর’’ সাহিত্য পত্রিকার প্রকাশনা উৎসব কমলগঞ্জে সপ্তাহব্যাপী নৃত্য প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধন কমলগঞ্জ প্রেসক্লাবে প্রবাসী কল্যাণ পরিষদের আর্থিক অনুদান প্রদান

চাতলাপুর চা বাগানে শ্রমিকের কর্মবিরতি ও বিক্ষোভ

রিপোটার : / ৪৩১ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশিত : বুধবার, ৩ নভেম্বর, ২০২১

image_pdfimage_print

কমলকন্ঠ রিপোর্ট।।
মৌলভীবাজারের কুলাউড়ার উপজেলার সীমান্তবর্তী চাতলাপুর চা বাগানে মেয়ের বিয়েতে জ্বালানি কাঠের জন্য নেয়া গাছের খন্ডাংশকে আটক করেছে স্থানীয় চা শ্রমিকরা। এঘটনায় গাছ চুরির অভিযোগ তুলে কর্মচারীকে চাকুরীচ্যুতের দাবিতে আজ বুধবার (৩ নভেম্বর) শ্রমিকরা চাতলাপুর চা বাগান কারখানা ও অফিসের প্রধান ফটকের সামনে অবস্থান নিয়ে প্রতিবাদ সমাবেশ করে ও সকাল ৮টা থেকে চা শ্রমিকরা কর্মবিরতি পালন করে। মঙ্গলবার বিকালে চা বাগানের একটি প্লান্টেশন এলাকা থেকে জ্বালানি কাঠের জন্য গাছের দু’টি খন্ডাংশ নিতে চান বাগানের টিলা বাবু (বাগান কর্মচারী) তৈয়ব আলী।
চাতলাপুর বাগানের শ্রমিকরা জানান, বাগানের টিলা বাবু (বাগান কর্মচারী) তৈয়ব আলী নানা সময়ে অনিয়ম করে আসছেন। শ্রমিকরা গাছের খন্ডাংশ চুরির সময়ে আটক করেছে। পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি সাধন বাউরী বলেন, বাগানের টিলা বাবু তৈয়ব আলী মেয়ের বিয়েকে কেন্দ্র করে তিনি জ্বালানি কাঠের জন্য মঙ্গলবার বিকেলে অবৈধভাবে একটি প্লান্টেশন এলাকা থেকে গাছের খন্ডাংশ কেটে নিয়ে যেতে চান। শ্রমিকরা রাস্তা থেকে আটক করেছে। এতে শ্রমিকদের মাঝে অসন্তোষ শুরু হয়।
তিনি বলেন, চা শ্রমিক মারা গেলে তার শেষকৃত্যের সময় চা বাগান কর্তৃপক্ষের কাছে জ্বালানি কাঠ চেয়ে সহজে পাওয়া যায় না। আর একজন বাগান কর্মচারী মেয়ের বিয়ের জন্য অবৈধভাবে জ্বালানি কাঠ নিয়ে যাচ্ছেন।
এ ঘটনার প্রতিবাদে মঙ্গলবার বিকেল থেকে চাতলাপুর চা বাগানের শ্রমিকরা অভিযুক্ত বাগান কর্মচারীকে চাকুরিচূত্য করার দাবি জানাচ্ছে। বুধবার সকালে চা বাগান কারখানা ও অফিসের প্রধান ফটকের সামনে অবস্থান নিয়ে সমাবেশ করছে।
এ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জাগরণ যুব ফোরামের সভাপতি মোহন রবিদাস, চা শ্রমিক নেতা সীতারাম বীন, শ্যামল অলমিক প্রমুখ। তাদের একটিই দাবি আজ বুধবারের মধ্যেই অভিযুক্ত চা বাগান কর্মচারিকে চাকুরিচ্যুত করে চা বাগান থেকে বের করে দিতে হবে। তবে অভিযুক্ত চা বাগান কর্মচারী তৈয়ব আলী বলেন, আগামী ১০ নভেম্বর আমার বড় মেয়ের বিয়ে হবে। এদিন রান্নার কাজে ব্যবহারে জ্বালানি কাঠের জন্য চা বাগান কর্তৃপক্ষের জ্ঞাতসারেই পুরাতন গাছের জীর্ণশীর্ণ দু’টি খন্ডাংশ নিতে চেয়েছিলাম। তবে কিছু সংখ্যক লোকের পূর্ব বিরোধে শ্রমিকদের উস্কিয়ে পরিকল্পিতভাবে তাকে চাকুরিচ্যুত করতে এ আন্দোলন শুরু করেছে। এটি নিয়মতান্ত্রিক নয় বলে তিনি দাবি করেন।
চাতলাপুর চা বাগান ব্যবস্থাপক মো. কামরুজ্জামান জানান, মঙ্গলবার বিকেলেই অভিযুক্ত কর্মচারীকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। আর এ চা বাগানের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তিনি আরও বলেন, বুধবার বিকেলে চা শ্রমিকদের সাপ্তাহিক মজুরি প্রদান করা হয়। চা শ্রমিকরা যদি শান্ত না হয় তা হলে স্বাভাবিকভাবে মজুরি প্রদান করা যাবে না।


আরো সংবাদ পড়ুন...

আর্কাইভ

Developed By Radwan Ahmed