Logo
সংবাদ শিরোনাম :
কমলগঞ্জে বঙ্গমাতা`র জন্মবার্ষিকীতে মহিলা অধিদপ্তরের সেলাই মেশিন বিতরণ দুর্বৃত্তদের আগুনে পুড়ে ছাই ধলই চা বাগানের অর্ধশত বছরের সব নথিপত্র কমলগঞ্জে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার রোধকল্পে কর্মশালা লন্ডন যাওয়া হলো না সাইফের ! কমলগঞ্জে আজকের পত্রিকার ১ম বর্ষপুর্তি পালিত সোয়া দুই বছর পর চাতলাপুর অভিবাসন কেন্দ্র দিয়ে ভারত-বাংলাদেশ যাত্রী পারাপার শুরু কমলগঞ্জে বৃক্ষরোপন কর্মসূচীর উদ্বোধন বকেয়া  ভাতার দাবীতে আর্সেনিক কর্মীদের জঃ প্রকৌশলীর অফিস ঘেরাও ।। নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট স্বারকলিপি পেশ কমলগঞ্জে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচারবিরোধী দিবস উদযাপন আল আমিন প্লাজায় দুঃসাহসিক চুরি

কমলগঞ্জে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি বানিজ্য

রিপোটার : / ৪৯৭ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশিত : বুধবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০

image_pdfimage_print

কমলকন্ঠ রিপোর্ট ।।

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার কমলগঞ্জ সরকারি গণমহাবিদ্যালয়, সুজা মেমোরিয়াল কলেজে একাদশ শ্রেণীতে ভর্তিতে অতিরিক্ত ফি আদায়ের অভিযোগ উঠেছে। শিক্ষা বোর্ডের জারি করা ভর্তি প্রজ্ঞাপনে নিয়মনীতিকে তোয়াক্কা না করে অতিরিক্ত ভর্তি ফি আদায় করছে কলেজের কর্তৃপক্ষ। এতে দরিদ্র শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা টাকা জোগাড় করতে হিমশিম খাচ্ছেন।

ভুক্তভোগী বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী জানান, উপজেলা সদরের কমলগঞ্জ সরকারি গণমহাবিদ্যালয়ে চলতি বছর প্রত্যেক শিক্ষার্থীর কাছ থেকে অনলাইন প্রসেসিং ফি, ভর্তি ফি, ভর্তিকরণ নামে এক সাথে একাদশ শ্রেণীর ভর্তির ক্ষেত্রে শিক্ষার্থী প্রতি মানবিক, ব্যবসায় শিক্ষা, বিজ্ঞান ও বিএম শাখায় ২৭০০/২৮০০ টাকা করে নেয়া হচ্ছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, কমলগঞ্জ সরকারি গণমহাবিদ্যালয়ের সামনে মা কম্পিউটারে শিক্ষার্থীদের ভিড়। সেখানে শিওর ক্যাশে টাকা পরিশোধ করে টাকার রশিদ কলেজে জমা দিলে ভর্তি নেয়া হয়।

দোকানের মালিক নাসির আহমদকে শিওর ক্যাশের টাকার কথা জিজ্ঞাস করলে তিনি জানান, এ টাকা কলেজের একাউন্টে যাবে। ওই দোকানদারও টাকার খাত বলতে পারেননি।

কমলগঞ্জ সরকারি গণমহাবিদ্যালয়ে একাদশ শ্রেণীতে ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীর অভিভাবক আলাল আহমেদ জানান, আমাদের কাছ থেকে ভর্তি বাবদ রশিদ মূলে ২ হাজার ৭শ টাকা নিয়েছে। কোন খাতে টাকা নেয়া হচ্ছে তা উল্লেখ নেই। আমরা যত দূর জেনেছি অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের এ বিষয়টি মন্ত্রণালয়ের পরিপত্রে উল্লেখ নেই। সুতরাং এটি বিধি বহির্ভূত।

একইভাবে শমসেরনগর সুজা মেমোরিয়াল কলেজেও অতিরিক্ত টাকা আদায় করা হচ্ছে। সেখানে একাদশ শ্রেণীর ভর্তি বাবদ ৩১শ টাকা আদায় করা হচ্ছে। এতে দরিদ্র শিক্ষার্থীদের অভিভাবক টাকা সংগ্রহে হিমশিম খাচ্ছেন।

কমলগঞ্জ সরকারি গণমহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ কামরুজ্জামান মিঞা বলেন, আমাদের প্রতিষ্ঠান সরকারি হলেও আগের সিদ্ধান্ত মোতাবেক ভর্তি কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। তাছাড়া বোর্ডের প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী ভর্তির টাকা নেয়া হচ্ছে।

শমসেরনগর সুজা মেমোরিয়াল কলেজের অধ্যক্ষ ম. মুর্শেদুর রহমান বলেন, আমরা সরকারি প্রজ্ঞাপন অনুসরণ করেই ভর্তি ফি আদায় করছি। এখানে প্রজ্ঞাপনের কোন ব্যত্যয় ঘটছে না।


আরো সংবাদ পড়ুন...

আর্কাইভ

Developed By Radwan Ahmed