Logo

কমলগঞ্জে এক বৃদ্ধের মৃত্যু নিয়ে ধুম্রজাল

রিপোটার : / ৫৫২ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশিত : রবিবার, ৯ আগস্ট, ২০২০

কমলকন্ঠ রিপোর্ট ।।

গাছের ডাল কাটা নিয়ে প্রতিপক্ষের সাথে ঝগড়া ঝাটির পর এরশাদ উল্ল্যা (৯৫) নামে অসুস্থ্য এক বৃদ্ধের মৃত্যু নিয়ে স্থানীয়ভাবে ধুম্রজাল সৃষ্টি হয়েছে। নিহতের পরিবারের প্রথম স্ত্রীর সদস্যরা তাকে মেরে ফেলা হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেন। তবে ডাল কাটা নিয়ে কথাকাটাকাটি হলেও এধরণের কোন ঘটনা ঘটেনি বলে স্থানীয়রা দাবি করেছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরির্শন করছে। এ ঘটনাটি ঘটেছে রোববার (৯ আগষ্ট) দুপুর ২টায় কমলগঞ্জ উপজেলার পতনউষার ইউনিয়নের গোপীনগর গ্রামে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার গোপীনগর গ্রামে এরশাদ উল্যার ছেলেরা ও পাশের বাড়ির নেছার আলীদের সাথে গাছের ডাল কাটা নিয়ে ঝগড়াঝাটি হয়। ঘটনার সময়ে অসুস্থ্য এরশাদ উল্যা স্যালাইন শেষ করে ঘর থেকে বেরিয়ে উঠোনে চলে আসেন। পরে তিনি ঘরে চলে যাওয়ার পর মারা যান। তবে এরশাদ উল্ল্যার প্রথম স্ত্রী ও তার ছেলে শহীদ মিয়া, রফিক মিয়া অভিযোগ তুলেন বলেন, এরশাদ উল্ল্যাকে মেরে ফেলা হয়েছে। ঘটনার খবর পেয়ে কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাসহ পুলিশ সদস্যরা সরেজমিন পরিদর্শন করছেন। এরশাদ উল্ল্যা দীর্ঘ দিন স্থানীয় ভূরভূরি বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ছিলেন।
এ বিষয়ে পতনউষার ইউপি চেয়ারম্যান তওফিক আহমদ বাবু বলেন, আসলে দু’পরিবারের মধ্যে গাছের ডাল কাটা নিয়ে হালকা ঝগড়া ঝাটি হয়। তবে তাকে কেউ ধাক্কা দিয়ে ফেলার কোন সত্যতা পাওয়া যায়নি। যতটুকু জানা গেছে অসুস্থ্য বৃদ্ধের স্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে।
কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আরিফুর রহমান বলেন, ঘটনা শুনে সরেজমিন পরিদর্শন করেছেন। নিহত ব্যক্তির প্রথম স্ত্রী ও সন্তানদের একটা অভিযোগ ছিল এরশাদ উল্ল্যাকে মেরে ফেলা হয়েছে। তবে সরেজমিনে আসার পর মারামারির কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি। তাছাড়া অভিযোগকারীরাও ঝগড়া ঝাটির সময়ে এখানে উপস্থিত ছিল না। এটি একটি স্বাভাবিক মৃত্যু বলে ধারণা করা হচ্ছে। তারপরও ঘটনা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।


আরো সংবাদ পড়ুন...
Developed By Radwan Ahmed