Logo
সংবাদ শিরোনাম :
আদমপুরে জলাশয় থেকে অজ্ঞাত এক নারীর মরদেহ উদ্ধার রাজনগরে সড়ক দুর্ঘটনায় যুবকের মৃত্যু ১৮ মাসের বকেয়া বেতনের দাবিতে মৌলভীবাজার পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট শিক্ষকদের মানববন্ধন কুলাউড়ায় শপথ নিলেন ১২ ইউনিয়নের ১৫৬ জন বিজয়ী জেলা পরিষদ ও জেলা পুলিশের আয়োজনে স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ জাতীয় সংসদে সভাপতি মন্ডলীর তালিকায় প্রথম স্থানে উপাধ্যক্ষ ড. এম,এ, শহীদ এমপি উদ্বোধনের আড়াই মাসেও শুরু হয়নি ৩ কি:মি: আরসিসি ঢালাই কাজ র‍্যাবের অভিযানে এক লাখ জাল টাকাসহ আটক -১ কমলগঞ্জে কালের কন্ঠ শুভ সংঘের শীতবস্ত্র বিতরণ মুন্সীবাজারে সাংসদের ওপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত

কমলগঞ্জে স্বামীর হামলায় স্ত্রী গুরুতর আহত

রিপোটার : / ১১৭৩ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশিত : শনিবার, ২৫ জুলাই, ২০২০

image_pdfimage_print

কমলকন্ঠ রিপোর্ট ।।

পাষন্ড স্বামীর ছুরিকাঘাতে সফিনা বেগম (৪০) নামে এক গৃহবধু গুরুতর আহত হয়ে এখন মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। ঘটনাটি ঘটেছে (২৫ জুলাই) শনিবার সকাল ১০ টায় কমলগঞ্জ উপজেলার আদমপুর ইউনিয়নের কাঁঠালকান্দি গ্রামে।  তিন সন্তানের জননী আহত গৃহবধুর বড় ভাই আজাদ মিয়া সাংবাদিকদের জানান,   আজ থেকে প্রায় ২৫ বছর পূর্বে একই গ্রামের মৃত ইদ্রিস মিয়ার ছেলে সাদেক মিয়ার কাছে ইসলামী শরীয়া মোতাবেক তার ছোট বোন সফিনাকে বিয়ে দিয়েছিলেন। বিয়ের পর একদিনও শান্তি ছিলনা তাদের সংসারে । সাদেক  কারণে অকারণে তার বোনকে মার ধোর করতো। পিতৃপরিবারে দারিদ্রতার কথা ভেবে সব অত্যাচার মুখ বুঝে সহ্য করে আসছিল সফিনা । ইতি মধ্যে একে তিন সন্তানের জননী হন তার বোন। এরই এক পর্যায়ে প্রায় তিন বছর পূর্বে স্ত্রী ও সন্তানের সাথে ঝগড়া করে সাদেক নিজ বসতবাড়ী ছেড়ে  গ্রামের আলী আকবর আলীদের বাড়িতে বসবাস করতে থাকেন। এরপরও সফিনার কপাল থেকে অবসান হয়নি  দূর্ভোগের ।স্বামীর কাছ থেকে কোন সহায়তা না পেয়ে অসহায় সফিনা বাড়ীতে গরু- ছাগল, হাস- মুরগী ইত্যাদি পালন করে সন্তানদের ও নিজের ভরন-পোষন চালাতে গিয়েয় শেষ রক্ষা করতে পারছিলেন না । স্বামী সাদেক প্রায়ই এসে সফিনার  লালিত-পালিত গরু ছাগল হাঁস মুরগি ধরে নিয়ে ইচ্ছামত মূল্যে মানুষজনের কাছে বিক্রি করে দিচ্ছে । শুধু তাই নয় গত তিন বৎসরে পরিবার ছেড়ে ভিন্ন স্থানে থাকা অস্থায় দুই বিঘা ধানি জমিও বিক্রি করে দিয়েছেন। আজ সকালে সাদেক আরও আধ বিঘা ধানি জমি বন্ধক দিতে এলে তাতে বাধা দেন স্ত্রী সফিনা। এনিয়ে বাক বিতন্ডার এক পর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে তার সঙ্গে থাকা ছুরি দিয়ে সফিনাকে আঘাত করে । সফিনা গুরুতর আহত হন। এসময় সফিনার আর্ত চিৎকার শুনে তার বড় ছেলে এগিয়ে আসলে সফিনা প্রাণে রক্ষা পান। মাকে রক্ষা করতে গিয়ে  ছেলেও আক্রান্ত হয় বলে তিনি জানিয়েছেন। পরে স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে  ভর্ত্তি করেন ।  তন্মধ্যে গুরুতর আহত সফিনা বেগমের অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। এলাকাবাসী ঘটনার সত্যতা স্বীকর করলেও এ ব্যাপারে অভিযুক্ত সাদেক মিয়া তার উপর আনীত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, বাড়ীতে তার জমি দেখেতে স্ত্রী ও সন্তানরা মিলে অতর্কিতে হামলা চালিয়েছে ।এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আহতের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছিলো।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন...

আর্কাইভ